অনলাইন খতিয়ান/ পর্চা প্রাপ্তির আবেদনের অবস্থা ২০২২। যেভাবে ভূমি অফিসের আবেদনের অবস্থা দেখবেন

আপনি অনলাইনেই খতিয়ান বা জমির পর্চা প্রাপ্তির আবেদন করতে পারেন – মাত্র ৯০ টাকা খরচ করে ঘরে বসেই পর্চা পেতে পারেন – Alamin

ভূমি অফিস বাসায় পাঠিয়ে দিবে পর্চা? হ্যাঁ ঠিকই শুনেছেন। অনলাইনে জমির খতিয়ান/পর্চা পাবেন। ঠিক কিভাবে পাবেন জেনে রাখুন কাজে লাগবে। বর্তমানে চলছে ডিজিটাল যুগ।এই যুগে আপনি অনেক কিছুই হাতের নাগালে পাবেন। এই যুগ মানুষকে দিন দিন অলস করে দিচ্ছে।আসলে প্রযুক্তির ব্যবহার আমাদের দৈনন্দিন জীবনকে সহজ আরামদায়ক করে তুলেছে।এখন আপনি যা চান তাই ঘরে বসে অনলাইনে সম্ভব। আসলে প্রযুক্তীর ব্যবহার কারনে আমাদের সময় ও কষ্ট দুইটাই লাঘব করে দিয়েছে।দেশের যেকোন নাগরিক যেকোন জায়গা থেকে ব্যক্তিগত কিংবা ক্রয় করতে ইচ্ছুক যে কোন জমির বিভিন্ন রেকর্ড এখন খুব সহজেইঅনলাইন আবেদনের মাধ্যমে সংগ্রহ করতে পারবেন। অনলাইনে জমির খতিয়ান যাচাই করার নিয়ম ২০২২ । জমির পর্চার ছবি

এসএ (SA), সিএস (CS), বিআরএস (BRS) নকল / পর্চা/ খতিয়ান/সার্টিফাইড কপি অনলাইনে আবেদন করে সংগ্রহ করা যাবে সংশ্লিষ্ট জেলার জেলার প্রশাসকের কার্যালয়ের রেকর্ডরুম থেকে। জমির খতিয়াল তিনভাবে তোলা যাবে। জেলা ই-সেবাকেন্দ্রঃজেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে জেলা ই-সেবাকেন্দ্রের মাধ্যমে ওয়ানস্টপ সার্ভিস গ্রহন করা যায়। ইউনিয়ন তথ্য ও সেবাকেন্দ্রঃদেশের বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদে অবস্থিত ইউনিয়ন পরিষদ সেবা কেন্দ্র (ইউআইএসসি) থেকে নাগরিকগন আবেদন করতে পারবেন। সেক্ষেত্রে সরকার নির্ধারিত কোর্ট ফি ছাড়াও জেলা প্রশাসন নির্ধারিত প্রসেসিং ফি দিতে হবে।  ওয়েব পোর্টালে নির্ধারিত আবেদন ফরম ফিলআপ করে ব্যক্তি নিজেই জমির খতিয়ান সংগ্রহ করতে পারে। ওয়েব পোর্টাল পাবার জন্য আপনাকে eporcha.gov.bd ঠিকানায় গিয়ে অনলাইন আবেদন করতে হবে।

অনলাইন হতেই আপনি আপনার পর্চা যাচাই করতে পারেন। আপনি চাইলে পর্চা বা খতিয়ানের সার্টিফাইট কপির জন্য আবেদন করতে পারবেন। আপনি অনলাইন কপির জন্য আবেদন করে ফ্রিতে অনলাইন কপি ডাউনলোড করতে পারবেন। আপনি যদি কোন ভেন্ডার দিয়ে একটি পর্চা বা খতিয়ান তোলেন তবে আপনার ৫-৭শ টাকা ব্যয় হতে পারে। অনলাইন ৪০ টাকা ফি এবং হোম ডেলিভারির জন্য ৫০ টাকাসহ সর্বমোট ৯০ টাকা ব্যয় করে একটি পর্চার সার্টিফাইড কপি সংগ্রহ করতে পারেন। আবেদন করতে eporcha.gov.bd/khatian এই লিংকে যান।

আপনার পর্চা প্রাপ্তির আবেদন কি অবস্থায় আছে তা আপনি অনলাইনেই চেক করতে পারবেন। যদিও কত দ্রুত পাবেন তা আপনার জেলার ভূমি অফিসের কাজের গতির উপর নির্ভর করবে। 

প্রথমত আপনি অবশ্যই মোবাইল নম্বর ব্যবহার করে এবং নির্ধারিত পাসওয়ার্ড দিয়ে ই পর্চা সাইটে রেজিস্ট্রেশন করে অনলাইনে পর্চা প্রাপ্তির আবেদন করেছেন।

অনলাইন খতিয়ান/ পর্চা প্রাপ্তির আবেদনের অবস্থা ২০২২। যেভাবে ভূমি অফিসের আবেদনের অবস্থা দেখবেন

Caption: e khotian Application Status । Check your Application Status

অনলাইনে ডাকযোগে খতিয়ান প্রাপ্তির আবেদনের অবস্থা ২০২২। যেভাবে আপনি অনলাইনে আপনার আবেদনের অবস্থা চেক করবেন

  1. প্রথমে আপনি eporcha.gov.bd লিংক ভিজিট করুন।
  2. ক্লিক নাগরিক লগইন (বাম পাশের প্যানেলে লেখার উপর ক্লিক করুন)।
  3. আপনার রেজিস্ট্রিকৃত মোবাইল নম্বর এবং পাসওয়ার্ড ইনপুট করুন।
  4. লগইন ক্লিক করুন।
  5. ব্যাস মোট প্রক্রিয়াধীন আবেদনে বিস্তারিত দেখতে পাবেন।
  6. সর্বশেষ অবস্থা দেখুন( উদাহরণ হিসেবে “তুলনাকারীর কাছে প্রেরণের অপেক্ষায়” এমন লেখা থাকতে পারে।

অনলাইন আবেদনের ক্ষেত্রে কত দিনের মধ্যে পর্চা পাওয়া যায়?

সেখানে জমির খতিয়ানের জন্য আবেদন বাটনে ক্লিক করলেই সংশ্লিষ্ট ফর্মটি পাওয়া যাবে। জমির খতিয়ানের জন্য আবেদন করা যায় দু’ভাবেঃ ক) জরুরি ডেলিভারীঃসময় লাগে সাধারনত ০৩ কার্যদিবস। সাধারন ডেলিভারী- সময় লাগে লাগে ৭-১০দিন। খতিয়ান(পর্চা) টি ডাকযোগে পেতে নির্ধারিত কলাম পূরণ করতে হবে। আবেদনের সাথে নির্ধারিত কোর্ট ফি জেলা প্রশাসকের সংশ্লিষ্ট ই-সেবাকেন্দ্র থেকে ক্রয় করে আবেদনপত্রের সাথে যুক্ত করে জেলা সেবা কেন্দ্রে জমা দেওয়া যাবে। এছাড়াও আবেদনের সাথে কোর্ট ফি সংযুক্ত করে ডাকযোগে জেলা ই-সেবাকেন্দ্রে জমা দেওয়া যাবে। সংশ্লিষ্ট খরচঃখতিয়ান উত্তোলন ফিঃ জরুরিঃ কোর্ট ফি-২০ টাকা, ডেলিভারী ফি-২ টাকা।সাধারণ কোর্ট ফি- ১০ টাকা, ডেলিভারী ফি- ২ টাকা।

One thought on “অনলাইন খতিয়ান/ পর্চা প্রাপ্তির আবেদনের অবস্থা ২০২২। যেভাবে ভূমি অফিসের আবেদনের অবস্থা দেখবেন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *