বাড়ি তৈরির জন্য ছাদ ঢালাই খুবই গুরুত্বপূর্ণ ধাপ- রড, সিমেন্ট ও বালি আনুপাতিক হারে ব্যবহার না করলে ছাদ মজবুত হবে না–ছাদ ঢালাইয়ের হিসাব ২০২৪

ছাদ ঢালাইয়ের ইটের হিসাব কিভাবে বের করে?–ছাদ ঢালাইয়ের জন্য কত ইট লাগবে তা নির্ভর করে বেশ কিছু বিষয়ের উপর। প্রথমত, ছাদের আয়তন: ছাদের দৈর্ঘ্য x প্রস্থ x ইটের পুরুত্ব = ইটের সংখ্যা দ্বিতীয়ত, ইটের ধরণ: লাল ইট: 1 ঘনফুটে 50-55 টি ইট বালি ইট: 1 ঘনফুটে 40-45 টি ইট তৃতীয়ত, ইটের সাজানোর পদ্ধতি: সাধারণ সাজানো: 1 ঘনফুটে 18-20 টি ইট কার্পেটিং: 1 ঘনফুটে 12-14 টি ইট উদাহরণ: ধরুন, ছাদের দৈর্ঘ্য 10 ফুট, প্রস্থ 8 ফুট এবং ইটের পুরুত্ব 4 ইঞ্চি (0.33 ফুট)। লাল ইট ব্যবহার করলে, ইটের সংখ্যা হবে: 10 x 8 x 0.33 x 50 = 1320 টি বালি ইট ব্যবহার করলে, ইটের সংখ্যা হবে: 10 x 8 x 0.33 x 45 = 1188 টি কিছু টিপস: ইট কেনার সময় অতিরিক্ত 5-10% ইট কিনে রাখা ভালো, কারণ ভাঙাচুরা হতে পারে। ইটের মান ভালো কিনা তা পরীক্ষা করে নিন। ইটের সাজানোর কাজ অভিজ্ঞ মিস্ত্রি দিয়ে করান। 

ছাদ ঢালাইয়ের বালির হিসাব কিভাবে বের করে? ছাদ ঢালাইয়ের জন্য কত বালি লাগবে তা নির্ভর করে বেশ কিছু বিষয়ের উপর। প্রথমত, ছাদের আয়তন: ছাদের দৈর্ঘ্য x প্রস্থ x ঢালাইয়ের পুরুত্ব = বালির ঘনফুট দ্বিতীয়ত, বালির ধরণ: নদীর বালি: 1 ঘনফুটে 1.55 টন বালি খনিজ বালি: 1 ঘনফুটে 1.75 টন বালি তৃতীয়ত, মিশ্রণের অনুপাত: সাধারণত 1:2:4 (সিমেন্ট:বালি:খোয়া) অনুপাত ব্যবহার করা হয়। উদাহরণ: ধরুন, ছাদের দৈর্ঘ্য 10 ফুট, প্রস্থ 8 ফুট এবং ঢালাইয়ের পুরুত্ব 6 ইঞ্চি (0.5 ফুট)। নদীর বালি ব্যবহার করলে, বালির ঘনফুট হবে: 10 x 8 x 0.5 x 1.55 = 62 বালির পরিমাণ হবে: 62 x 1.55 = 95.3 টন খনিজ বালি ব্যবহার করলে, বালির পরিমাণ হবে: 62 x 1.75 = 108.75 টন কিছু টিপস: বালি কেনার সময় ভালোভাবে পরিষ্কার কিনা তা পরীক্ষা করে নিন।বালিতে নোংরা, মাটি, পাথর ইত্যাদি থাকলে তা ঢালাইয়ের মান নষ্ট করতে পারে। বালি ও সিমেন্টের মিশ্রণ ভালোভাবে করতে হবে।

ছাদ ঢালাইয়ের বালির হিসাব কিভাবে করে?  ছাদ ঢালাইয়ের জন্য কত বালি লাগবে তা নির্ভর করে বেশ কিছু বিষয়ের উপর। প্রথমত, ছাদের আয়তন: ছাদের দৈর্ঘ্য x প্রস্থ x ঢালাইয়ের পুরুত্ব = বালির ঘনফুট । দ্বিতীয়ত, বালির ধরণ: নদীর বালি: 1 ঘনফুটে 1.55 টন বালি, খনিজ বালি: 1 ঘনফুটে 1.75 টন বালি। তৃতীয়ত, মিশ্রণের অনুপাত: সাধারণত 1:2:4 (সিমেন্ট:বালি:খোয়া) অনুপাত ব্যবহার করা হয়। উদাহরণ: ধরুন, ছাদের দৈর্ঘ্য 10 ফুট, প্রস্থ 8 ফুট এবং ঢালাইয়ের পুরুত্ব 6 ইঞ্চি (0.5 ফুট)। নদীর বালি ব্যবহার করলে, বালির ঘনফুট হবে: 10 x 8 x 0.5 x 1.55 = 62 বালির পরিমাণ হবে: 62 x 1.55 = 95.3 টন খনিজ বালি ব্যবহার করলে, বালির পরিমাণ হবে: 62 x 1.75 = 108.75 টন কিছু টিপস: বালি কেনার সময় ভালোভাবে পরিষ্কার কিনা তা পরীক্ষা করে নিন।বালিতে নোংরা, মাটি, পাথর ইত্যাদি থাকলে তা ঢালাইয়ের মান নষ্ট করতে পারে। বালি ও সিমেন্টের মিশ্রণ ভালোভাবে করতে হবে।

ছাদ ঢালাই এর নিয়ম ২০২৪ । বেজ ঢালাই এর হিসাব

বেজ ঢালাই এর হিসাব বের করা সহজ। প্রথমত, বেজ এর আয়তন বের করতে হবে: বেজ এর দৈর্ঘ্য x প্রস্থ x উচ্চতা = বেজ এর আয়তন দ্বিতীয়ত, বেজ ঢালাই এর জন্য প্রয়োজনীয় উপকরণের পরিমাণ বের করতে হবে: ক) সিমেন্ট: বেজ এর আয়তন x সিমেন্টের অনুপাত = সিমেন্টের পরিমাণ সাধারণত, বেজ ঢালাই এর জন্য 1:3:6 (সিমেন্ট:বালি:খোয়া) অনুপাত ব্যবহার করা হয়। খ) বালি: বেজ এর আয়তন x বালির অনুপাত = বালির পরিমাণ গ) খোয়া: বেজ এর আয়তন x খোয়ার অনুপাত = খোয়ার পরিমাণ ঘ) জল: সিমেন্টের পরিমাণ x 0.5 = জলের পরিমাণ উদাহরণ: ধরুন, বেজ এর দৈর্ঘ্য 10 ফুট, প্রস্থ 8 ফুট এবং উচ্চতা 6 ইঞ্চি (0.5 ফুট)। 1:3:6 অনুপাত ব্যবহার করে বেজ ঢালাই এর জন্য প্রয়োজনীয় উপকরণের পরিমাণ বের করা হল: ক) সিমেন্ট: 10 x 8 x 0.5 x 1/10 = 4 টন খ) বালি: 10 x 8 x 0.5 x 3/10 = 12 টন গ) খোয়া: 10 x 8 x 0.5 x 6/10 = 24 টন ঘ) জল: 4 x 0.5 = 2 টন। এই হিসাবগুলো কেবল একটি অনুমান। সঠিক হিসাবের জন্য একজন অভিজ্ঞ সিভিল প্রকৌশলীর সাথে পরামর্শ করা উচিত। এছাড়াও, ঢালাইয়ের কাজ শুরু করার আগে স্থানীয় কর্তৃপক্ষের অনুমতি নেওয়া আবশ্যক।

Caption: Roof Dalai Calculation

ছাদ ঢালাইয়ের হিসাব ২০২৪ । ১৫০০ বর্গ ফিট একটি ছাদ ঢালাই এর ইট, বালু, সিমেন্ট এবং রড এর পরিমান বের করার হিসাব

  1. ধরি ছাদের দৈর্ঘ্য = ৫০ ফিট এবং ছাদের প্রস্থ = ৩০ ফিট, ছাদের পুরুত্ব= ৫ ইঞ্চি তাহলে ছাদের ক্ষেত্রফল = দৈর্ঘ্য X প্রস্থ = ৫০ X ৩০ = ১৫০০ বর্গ ফিট এবং ছাদের আয়তন = দৈর্ঘ্য X প্রস্থ X পুরুত্ব = ৫০ X ৩০ X ০.৪১৬৬ (৫/১২ ইঞ্চি কে ফিট হিসেবে) = ৬২৪.৯ বা ৬২৫ ঘনফিট/সিএফটি আদ্র অবস্থায় আয়তন মোট আয়তনের চেয়ে দেড়গুন বেড়ে যায় তাই আদ্র আবস্থায় আয়তন = ৬২৫ X ১.৫ = ৯৩৭.৫ বা ৯৩৮ ঘনফিট/সিএফটি সিমেন্ট বালু ও খোয়ার অনুপাত = সিমেন্ট: বালু: খোয়া = ১: ২: ৪ অনুপাতের যোগফল = ১+২+৪ = ৭ সিমেন্ট এর পরিমান = (আদ্র অবস্থায় আয়তন X সিমেন্ট অনুপাত) ÷ অনুপাতের যোগফল = (৯৩৮ X ১) ÷ ৭ = ১৩৪ ঘনফিট/সিএফটি = ১০৮ ব্যাগ (১.২৫ ঘনফিট/সিএফটি = ১ ব্যাগ) বালু এর পরিমান = (আদ্র অবস্থায় আয়তন X বালুর অনুপাত) ÷ অনুপাতের যোগফল = (৯৩৮ X ২) ÷ ৭ = ২৬৮ ঘনফিট/সিএফটি খোয়া এর পরিমান = (আদ্র অবস্থায় আয়তন X খোয়ার অনুপাত) ÷ অনুপাতের যোগফল = (৯৩৮ X ৪) ÷ ৭ = ৫৩৬ ঘনফিট/সিএফটি = ৭৮৮২.৩ বা ৭৮৮৩ টি ইট থেকে তৈরি খোয়া (১ টি ইট = ০.০৬৮ ঘনফিট/সিএফটি) রড এর পরিমান = শুকনো অবস্থায় আয়তন X ২২২ X ১.৫% (রডের একক ওজন ২২২কেজি/ সিএফটি) = ৬২৫ X ২২২ X (১.৫ ÷ ১০০) = ২০৮১.২৫ বা ২০৮২ কেজি = ২.০৮২ টন ।
  2. আয়তন রড বসানোর দুরত্ব ও রডের মিলিমিটার অনুসারে রডের হিসাব, ছাদে সাধারনত ১০ মিলিমিটার, ১২ মিলিমিটার, ১৬ মিলিমিটার রড ব্যবহার করা হয় এবং ছাদে রড থেকে রডের দুরত্ব ৫ ইঞ্চি থেকে ৭ ইঞ্চি হয়ে থাকে।
  3. মনেকরি ছাদের দৈর্ঘ্য = ৫০ ফিট এবং ছাদের প্রস্থ = ৩০ ফিট আমরা যদি ৫ ইঞ্চি পর পর রড বসাই তাহলে ৫০ ফিট এ মোট রডের পরিমান = ৫০ফিট/ ৫ ইঞ্চি +১ = ৬০০ ইঞ্চি / ৫ ইঞ্চি +১ = ১২০+১ = ১২১ পিস (প্রতি পিস ৩০ ফিট দৈর্ঘের) = ৩৬৩০ ফিট ৩০ ফিট এ মোট রডের পরিমান = ৩০ফিট/ ৫ ইঞ্চি +১ = ৩৬০ ইঞ্চি / ৫ ইঞ্চি +১ = ৭২+১ = ৭৩ পিস (প্রতি পিস ৫০ ফিট দৈর্ঘের) = ৩৬৫০ ফিট মোট রডের পরিমান = ৩৬৩০ ফিট+ ৩৬৫০ ফিট =৭২৮০ ফিট।
  4. রডের ওজন = D²/৫৩২.২ কেজি (D হল রডের ডায়া বা মিলিমিটার) = ১২²/ ৫৩২.২ কেজি (১২ মিলিমিটার রড এর ক্ষেত্রে) = ০.২৭ কেজি (প্রতি ফিট এ) মোট ওজন= ৭২৮০ X ০.২৭ কেজি = ১৯৬৫.৬ বা ১৯৬৬ কেজি = ১.৯৬৬ টন (আরও ৫-১০% অপচয় এর জন্য বাড়তি রডের দরকার হবে) = ২০৬৪.৩ বা ২০৬৫ কেজি(৫% বাড়তি ধরে)ছাদ ঢালাইয়ের হিসাব।
  5. ১৫০০ বর্গ ফিট একটি ছাদ ঢালাই এর ইট, বালু, সিমেন্ট এবং রড এর পরিমান বের করার হিসাব মনে করি ছাদের দৈর্ঘ্য = ৫০ ফিট এবং ছাদের প্রস্থ = ৩০ ফিট ছাদের পুরুত্ব= ৫ ইঞ্চি তাহলে ছাদের ক্ষেত্রফল = দৈর্ঘ্য X প্রস্থ = ৫০ X ৩০ = ১৫০০ বর্গ ফিট এবং ছাদের আয়তন = দৈর্ঘ্য X প্রস্থ X পুরুত্ব = ৫০ X ৩০ X ০.৪১৬৬ (৫/১২ ইঞ্চি কে ফিট হিসেবে) = ৬২৪.৯ বা ৬২৫ ঘনফিট/সিএফটি আদ্র অবস্থায় আয়তন মোট আয়তনের চেয়ে দেড়গুন বেড়ে যায় তাই আদ্র আবস্থায় আয়তন = ৬২৫ X ১.৫ = ৯৩৭.৫ বা ৯৩৮ ঘনফিট/সিএফটি সিমেন্ট বালু ও খোয়ার অনুপাত = সিমেন্ট: বালু: খোয়া = ১: ২: ৪ অনুপাতের যোগফল = ১+২+৪ = ৭ সিমেন্ট এর পরিমান = (আদ্র অবস্থায় আয়তন X সিমেন্ট অনুপাত) ÷ অনুপাতের যোগফল = (৯৩৮ X ১) ÷ ৭ = ১৩৪ ঘনফিট/সিএফটি = ১০৮ ব্যাগ (১.২৫ ঘনফিট/সিএফটি = ১ ব্যাগ) বালু এর পরিমান = (আদ্র অবস্থায় আয়তন X বালুর অনুপাত) ÷ অনুপাতের যোগফল = (৯৩৮ X ২) ÷ ৭ = ২৬৮ ঘনফিট/সিএফটি খোয়া এর পরিমান = (আদ্র অবস্থায় আয়তন X খোয়ার অনুপাত) ÷ অনুপাতের যোগফল = (৯৩৮ X ৪) ÷ ৭ = ৫৩৬ ঘনফিট/সিএফটি = ৭৮৮২.৩ বা ৭৮৮৩ টি ইট থেকে তৈরি খোয়া (১ টি ইট = ০.০৬৮ ঘনফিট/সিএফটি) রড এর পরিমান = শুকনো অবস্থায় আয়তন X ২২২ X ১.৫% (রডের একক ওজন ২২২কেজি/ সিএফটি) = ৬২৫ X ২২২ X (১.৫ ÷ ১০০) = ২০৮১.২৫ বা ২০৮২ কেজি = ২.০৮২ টন।
  6. আয়তন, রড বসানোর দুরত্ব ও রডের মিলিমিটার অনুসারে রডের হিসাব ছাদে সাধারনত ১০ মিলিমিটার, ১২ মিলিমিটার, ১৬ মিলিমিটার রড ব্যবহার করা হয় এবং ছাদে রড থেকে রডের দুরত্ব ৫ ইঞ্চি থেকে ৭ ইঞ্চি হয়ে থাকে মনে করি ছাদের দৈর্ঘ্য = ৫০ ফিট এবং ছাদের প্রস্থ = ৩০ ফিট আমরা যদি ৫ ইঞ্চি পর পর রড বসাই তাহলে ৫০ ফিট এ মোট রডের পরিমান = ৫০ফিট/ ৫ ইঞ্চি +১ = ৬০০ ইঞ্চি / ৫ ইঞ্চি +১ = ১২০+১ = ১২১ পিস (প্রতি পিস ৩০ ফিট দৈর্ঘের) = ৩৬৩০ ফিট ৩০ ফিট এ মোট রডের পরিমান = ৩০ফিট/ ৫ ইঞ্চি +১ = ৩৬০ ইঞ্চি / ৫ ইঞ্চি +১ = ৭২+১ = ৭৩ পিস (প্রতি পিস ৫০ ফিট দৈর্ঘের) = ৩৬৫০ ফিট মোট রডের পরিমান = ৩৬৩০ ফিট+ ৩৬৫০ ফিট =৭২৮০ ফিট রডের ওজন = D²/৫৩২.২ কেজি (D হল রডের ডায়া বা মিলিমিটার)। = ১২²/ ৫৩২.২ কেজি (১২ মিলিমিটার রড এর ক্ষেত্রে) = ০.২৭ কেজি (প্রতি ফিট এ) মোট ওজন= ৭২৮০ X ০.২৭ কেজি = ১৯৬৫.৬ বা ১৯৬৬ কেজি = ১.৯৬৬ টন (আরও ৫-১০% অপচয় এর জন্য বাড়তি রডের দরকার হবে) = ২০৬৪.৩ বা ২০৬৫ কেজি(৫% বাড়তি ধরে) বাড়ি নির্মাণের যেকোনো তথ্যের জন্য যোগাযোগ করতে পারেন।

ছাদ ঢালাইয়ের রডের হিসাব কিভাবে করে?

ছাদ ঢালাইয়ের জন্য কত রড লাগবে তা নির্ভর করে বেশ কিছু বিষয়ের উপর। প্রথমত, ছাদের আয়তন: ছাদের দৈর্ঘ্য x প্রস্থ x ঢালাইয়ের পুরুত্ব = রডের ঘনফুট দ্বিতীয়ত, ঢালাইয়ের ধরণ: RCC (Reinforced Cement Concrete): স্লাবের জন্য: 0.8 – 1.2% বীমের জন্য: 1.5 – 2.5% PCC (Plain Cement Concrete): 0.5 – 0.8% তৃতীয়ত, রডের সাইজ: 10mm, 12mm, 16mm, 20mm ইত্যাদি উদাহরণ: ধরুন, ছাদের দৈর্ঘ্য 10 ফুট, প্রস্থ 8 ফুট এবং ঢালাইয়ের পুরুত্ব 6 ইঞ্চি (0.5 ফুট)। RCC স্লাবের জন্য 1% রড ব্যবহার করলে, রডের ঘনফুট হবে: 10 x 8 x 0.5 x 0.01 = 0.4 রডের পরিমাণ হবে: 0.4 x 80 (1 টন = 80 ঘনফুট) = 32 টন কিছু টিপস: রড কেনার সময় ভালো মানের কিনা তা পরীক্ষা করে নিন। রডের সাইজ এবং পরিমাণ একজন অভিজ্ঞ সিভিল প্রকৌশলীর পরামর্শ অনুযায়ী ব্যবহার করুন। রড ঢালাইয়ের সময় সঠিকভাবে বসানো হয়েছে কিনা তা নিশ্চিত করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *