হ্যাঁ, অনলাইনে আবেদনের মাধ্যমে খতিয়ান ডাকযোগে বাসায় আসে- তাই খতিয়ান তুলতে দৌড়াদৌড়ি না করে ই পর্চায় গিয়ে আবেদন করুন – বি এস খতিয়ান অনলাইন আবেদন ২০২৩

অনলাইনে নাকি ডাউনলোড করা যায়? হ্যাঁ। অনলাইন হতে আপনি কিউআর কোড যুক্ত খতিয়ান ডাউনলোড করতে পারবেন। এটি প্রিন্ট করে ব্যবহার করা যাবে এবং এসিল্যান্ডের অফিসেও এটি গ্রহণযোগ্য। সার্টিফাইড কপি ডাকযোগে বাসায় পৌছে দিচ্ছে ভূমি অফিস। আমি নিজেও একাধিকবার খাতিয়ানের জন্য অনলাইনে আবেদন করলে পোস্ট অফিস কর্তৃপক্ষ আমার বাসায় খতিয়ানের সার্টিফাইড কপি পৌছে দিয়ে গেছে।

জমির খতিয়ান কিভাবে পাবো? আপনি জেলা প্রশাসকের রেকর্ড রুম থেকে খতিয়ানের সাটিফাইড কপি বা জাবেদা কপি সংগ্রহ করতে পারবেন অথবা https://eporcha.gov.bd এই ওয়েবসাইট এ প্রবেশ করুন। সার্ভে খতিয়ান অপশন সার্ভে খতিয়ান অনুসন্ধান আবেদন ফরম এ গিয়ে ফরমের যাবতীয় তথ্যাদি (বিভাগ, জেলা, উপজেলা, খতিয়ানের ধরন, মৌজা ,খতিয়ানের তালিকায় খতিয়ান নং/মালিকানা নাম দিয়ে অনুসন্ধানের মাধ্যমে আপনি খতিয়ান পেতে পারেন। এরপর খতিয়ান আবেদন ফর্মে উপজেলা / সার্কেল,মৌজা,খতিয়ান নং,জাতীয় পরিচয়পত্র নং,জন্ম তারিখ,মোবাইল নম্বর(+৮৮) প্রদান করে যাচাই করুন অপশনে ক্লিক করলে, নাম,ঠিকানা চলে আসবে। পরবর্তীতে ইমেইল আইডি প্রদান করে আবেদনের ধরণ অনলাইন কপি হলে তাত্ক্ষণিক ও সাটিফাইড কপি হলে ডেলিভারীর মাধ্যম (অফিস কাউন্টার/ডাকযোগে) নিবাচন করুন। এরপর আপনি পেমেন্টের মাধ্যম সিলেক্ট করে যোগফল প্রদান করে পরবর্তী ধাপ পেমেন্টে ক্লিক করুন এবং খতিয়ানের জন্য আবেদন করুন।

সি এস খতিয়ান দিয়ে আর এস এবং এস এ খতিয়ান গুলো কিভাবে পাবো? একটি খতিয়ান দিয়ে আরেকটি খতিয়ান পাওয়ার সুযোগ নেই, এক্ষেত্রে আপনি সি এস দাগ দিয়ে আর এস দাগ বের করতে হবে। তারপর আর এস দাগ দিয়ে আর এস খতিয়ান বের করতে পারবেন। বিষয়টি সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে ভূমি সেবা হেল্পলাইন ১৬১২২ নম্বরে কল করুন।

ই-নামজারি আবেদন ফরম ।  জমির খতিয়ান চেক নিয়ম দেখুন

খতিয়ানের মধ্যে পিং শব্দের অর্থ কী? পিং অর্থ পিতা।

Caption: eporcha.gov.bd

অনলাইন খতিয়ান অনুসন্ধান ২০২৩ । অনুসন্ধান করে অনলাইনে বিকাশে পেমেন্ট করলেই আবেদন শেষ

  1. ধাপ ১: ই-পর্চা ওয়েবসাইটে প্রবেশ: প্রথমে যেকোন ব্রাউজার থেকে www.eporcha.gov.bd এই লিংকটি ব্রাউজ করতে হবে।
  2. ধাপ ২: আবেদন প্রক্রিয়া- প্রথমে “খতিয়ান” অপশনে ক্লিক করতে হবে। ক্লিক করার পর নতুন একটি পেইজ আসবে
    নতুন পেইজে বিভাগ, জেলা, উপজেলার নাম, খতিয়ান নম্বর, খতিয়ানের ধরন ও ক্যাপচা কোড লিখে অনুসন্ধান করতে হবে। এরপর নির্বাচন করা খতিয়ান দেখা যাবে। এখান থেকে “আবেদন করুন” এ ক্লিক করতে হবে। এরপর প্রয়োজনীয় সকল তথ্য যেমন: নাম, মোবাইল নম্বর, ঠিকানা জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর, ইত্যাদি নির্বাচন করে পরবর্তী ধাপ (পেমেন্ট) বাটনে ক্লিক করতে হবে।
  3. ধাপ ৩: পেমেন্ট –  পেমেন্ট বাটনে ক্লিক করলে পেমেন্ট পেইজ চলে আসবে। bKash অথবা VISA এখান থেকে বিকাশ, রকেট বা অন্য যে কোনো মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে বা যে কোনো ব্যাংকের ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে পেমেন্ট করতে হবে। পোস্ট ফি বাবদ ১৪০/- (একশত চল্লিশ টাকা) পরবর্তীতে খতিয়ানটি ঢাকা পোস্ট অফিসের মাধ্যমে নির্ধারিত সময়ে আপনার ঠিকানায় পৌঁছে দেয়া হবে ।

খতিয়ানের সার্টিফাইড কপি পেতে কি করতে হবে?

আপনি অনলাইনে আবেদন করে খতিয়ান পেতে পারেন। অনলাইনে খতিয়ান আবেদনের জন্য https://eporcha.gov.bd এই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করুন। তারপর সার্ভে খতিয়ান এ ক্লিক করে সকল তথ্য সঠিকভাবে প্রদান করে আপনার কাঙ্খিত খতিয়ান এর জন্য আবেদন করতে পারবেন। সার্টিফাইড কপি ডাকযোগে নিলে ১৪০ টাকা, সার্টিফাইড কপি অফিস কাউন্টার থেকে নিলে ১০০ টাকা এবং অনলাইন কপি ১০০ টাকা,

জমি মৌজা ম্যাপ ডাউনলোড বাংলাদেশ । মৌজা ম্যাপ কি প্রিন্ট কপি ভালো নাকি স্ক্যান কপি? RS khatian online Application। জমির মৌজা ম্যাপ কোথায় পাওয়া যায়? জমির মালিকানা অনলাইনে যাচাই করার নিয়ম ২০২৩ । কোন জমির প্রকৃত মালিক কে জানতে কি কি তথ্য লাগবে?

2 thoughts on “বি এস খতিয়ান অনলাইন আবেদন ২০২৩ । বাসায় বসে খতিয়ান পেতে কি করতে হবে?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *