জমি খারিজ বা নামজারি সম্পন্ন করে সর্বশেষ খতিয়ান সংগ্রহ করুন এবং অনলাইনে খতিয়ানের তথ্য ও ছবি এন্ট্রি করে উপস্থাপন করুন-সংশ্লিষ্ট ভূমি অফিস তথ্য যাচাই করে হোল্ডিং নম্বর এন্ট্রি করবে এবং আপনি মোবাইলে মেসেজ পাবেন–হোল্ডিং নাম্বার বের করার নিয়ম ২০২৪

অনলাইনে খাজনা পরিশোধে রেজিষ্ট্রেশন কিভাবে করে? ঘরে বসেই ভূমি মালিক www.land.gov.bd অথবা www.ldtax.gov.bd ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে ক) মোবাইল নাম্বার খ) ন্যাশনাল আইডি কার্ড নাম্বার ও গ) জন্মতারিখ লিখলে আপনার মোবাইল এ একটি ৬ ডিজিট এর OTP কোড যাবে। মোবাইল এ প্রাপ্ত কোড লিখে পরবর্তী বাটনে ক্লিক করলে আপনার নিবন্ধন সম্পন্ন হবে। নিবন্ধন সম্পন্ন হলে আপনি আপনার প্রোফাইল এর জন্য একটি পাসওয়ার্ড দিয়ে আপনাকে আপনার আইডিতে লগইন করতে হবে। আইডিতে প্রবেশ করে আপনি খতিয়ান অপশনে গিয়ে খতিয়ানের তথ্য দিলে আপনার কাজ শেষ। পরবর্তী কাজ তহশিলদার করবেন। আপনার আপলোডকৃত খাজনার রশিদ বা খতিয়ান বা পর্চা ভূমি অফিস যাচাই করে নিশ্চিত হলে অনুমোদন করবেন। অনুমোদন হলেই কেবল মোট দাবী কত টাকা তা দেখাবে। এজন্য কিছুটি অপেক্ষা করতে হবে। অর্থাৎ প্রমানক আপলোড করার পর অনুমোদনের জন্য অপেক্ষা করতে হবে।

আপনি এই আইডি থেকে পরবর্তীতে ঘরে বসেই ভূমি উন্নয়ন কর দিতে পারবেন। ভূমি অফিস বা তহশিল অফিসে যেতে হবে না। আপনি পুনরায় আইডিতে লগিন করে পেমেন্ট অপশনে অনলাইন পেমেন্ট সিলেক্ট করে বিকাশ, নগদ বা রকেটের মাধ্যমে মোট দাবীকৃত অর্থ পরিশোধ করতে পারবেন। পেমেন্ট সম্পন্ন হতে দাখিলাতে গিয়ে রশিদ সংগ্রহ করতে পারবেন।

ভূমি অফিসে গেলে হোল্ডিং যদি বেশি ঝামেলা মনে হয় তবে আপনি প্রথমবার ইউপি বা ভূমি অফিসে গিয়ে ভূমি কর অনলাইনে পরিশোধ করলে আপনার মোবাইল নম্বর ইউজার আইডি এবং পাসওয়ার্ড করে দিবে এবং আপনি পরবর্তী আপনার মোবাইল নম্বর এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে লগিন করে বকেয়া বিল অনলাইনে নিজেই পরিশোধ করতে পারবেন। এজন্য মোবাইল বা কম্পিউটারে https://ldtax.gov.bd/citizen/register লিংকে ঢুকে লগিন করতে হবে এবং পেমেন্ট অপশনে গিয়ে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে পেমেন্ট করতে হবে।

অনলাইনে তথ্য এন্ট্রি করে হোল্ডিং নম্বর পাওয়া যায়/ এন্ট্রির ২/১ দিনের মধ্যে তথ্য অনুমোদন করে হোল্ডিং নম্বর দেয়া হয়

কৃষি ভূমির ভূমি উন্নয়ন কর । কত বিঘা কৃষি ভূমির উপর কোন কর দিতে হবে না? সরকার, সরকারি গেজেটে প্রজ্ঞাপন দ্বারা, কৃষি ভূমি, চা বাগান এবং অন্যান্য ভূমির ভূমি উন্নয়ন করের হার, সীমা ও শর্ত নির্ধারণ করিতে পারিবে । কৃষিকার্যের উপর নির্ভরশীল ব্যক্তি বা পরিবারভিত্তিক কৃষি ভূমির মোট পরিমাণ ৮.২৫ (আট দশমিক দুই পাঁচ) একর বা ২৫ (পঁচিশ) বিঘা পর্যন্ত হইলে উহার ভূমি উন্নয়ন কর মওকুফ থাকিবে এবং ইক্ষু, লবণ চাষের ভূমি ও কৃষকের পুকুর (বাণিজ্যিক মৎস্যচাষ ব্যতীত) উক্ত মওকুফের অন্তর্ভুক্ত হইবে। তবে শর্ত থাকে যে, কৃষিকার্যের উপর নির্ভরশীল ব্যক্তি ও পরিবারভিত্তিক কৃষি ভূমির মোট পরিমাণ ৮.২৫ (আট দশমিক দুই পাঁচ) একর বা ২৫ (পঁচিশ) বিঘার অধিক হইলে, সম্পূর্ণ কৃষি ভূমির ভূমি উন্নয়ন কর পরিশোধ করিতে হইবে। কৃষি ভূমি পল্লি এলাকা বা পৌর এলাকার যে কোন স্থানে অবস্থিত হউক না কেন, সকল ক্ষেত্রে অভিন্ন ভূমি উন্নয়ন কর হার ও শর্ত প্রযোজ্য হইবে।

কৃষি ভূমির ভূমি উন্নয়ন কর । কত বিঘা কৃষি ভূমির উপর কোন কর দিতে হবে না?
সরকার, সরকারি গেজেটে প্রজ্ঞাপন দ্বারা, কৃষি ভূমি, চা বাগান এবং অন্যান্য ভূমির ভূমি উন্নয়ন করের হার, সীমা ও শর্ত নির্ধারণ করিতে পারিবে ।
কৃষিকার্যের উপর নির্ভরশীল ব্যক্তি বা পরিবারভিত্তিক কৃষি ভূমির মোট পরিমাণ ৮.২৫ (আট দশমিক দুই পাঁচ) একর বা ২৫ (পঁচিশ) বিঘা পর্যন্ত হইলে উহার ভূমি উন্নয়ন কর মওকুফ থাকিবে এবং ইক্ষু, লবণ চাষের ভূমি ও কৃষকের পুকুর (বাণিজ্যিক মৎস্যচাষ ব্যতীত) উক্ত মওকুফের অন্তর্ভুক্ত হইবে।
তবে শর্ত থাকে যে, কৃষিকার্যের উপর নির্ভরশীল ব্যক্তি ও পরিবারভিত্তিক কৃষি ভূমির মোট পরিমাণ ৮.২৫ (আট দশমিক দুই পাঁচ) একর বা ২৫ (পঁচিশ) বিঘার অধিক হইলে, সম্পূর্ণ কৃষি ভূমির ভূমি উন্নয়ন কর পরিশোধ করিতে হইবে।
কৃষি ভূমি পল্লি এলাকা বা পৌর এলাকার যে কোন স্থানে অবস্থিত হউক না কেন, সকল ক্ষেত্রে অভিন্ন ভূমি উন্নয়ন কর হার ও শর্ত প্রযোজ্য হইবে।

Caption: ldtax.gov.bd

জমির হোল্ডিং রেজিস্ট্রেশনের প্রক্রিয়ার কাগজপত্রাদি ২০২৪ । ভূমি কর দিতে কি কি কাগজপত্র লাগে?

  1. রেকর্ড/খারিজ খতিয়ানের কপি।
  2. পূর্ববর্তী দাখিলার কপি বা খাজনার (রশিদ সর্বশেষ)।
  3. পাসপোর্ট সাইজের ছবি ০১ কপি।
  4. জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি।
  5. সচল মোবাইল নম্বর।

ভূমি উন্নয়ন বকেয়া পড়লে কি জরিমানা গুণতে হয়?

কোনো বৎসরের ভূমি উন্নয়ন কর উক্ত বৎসরের ৩০ জুন তারিখের মধ্যে পরিশোধ না করা হইলে, উহা বকেয়া ভূমি উন্নয়ন কর হিসাবে বিবেচিত হইবে। ভূমি মালিক একাদিক্রমে ৩ (তিন) বৎসর বকেয়া ভূমি উন্নয়ন কর পরিশোধ না করিলে,বকেয়া ভূমি উন্নয়ন কর প্রথম বৎসর হইতে তৃতীয় বৎসর পর্যন্ত বার্ষিক ৬.২৫% (ছয় দশমিক দুই পাঁচ শতাংশ) হারে জরিমানাসহ আদায়যোগ্য হইবে এবং তৃতীয় বৎসর শেষে উক্ত বকেয়া ভূমি উন্নয়ন কর Public Demands Recovery Act, 1913 (Act No. III of 1913) এর বিধান অনুসারে সার্টিফিকেট মামলা রুজু করিয়া আদায় করা যাইবে। প্রচলিত পদ্ধতির পাশাপাশি ইলেকট্রনিক পদ্ধতিতেও উপ-ধারা (২) এর অধীন সার্টিফিকেট মামলা রুজু ও সার্টিফিকেট মামলার সকল কার্যক্রম গ্রহণ করা যাইবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *