জমির মাপামাপির ক্ষেত্রে যে চিহ্নগুলো বুঝতে হবে – ভূমি জরিপে মৌজা ম্যাপে যে সমস্ত আলামত বা সাংকেতিক চিহ্ন ব্যবহার করা হয় – অবজেক্ট ইন সিটু সাংকেতিক চিহ্নের তালিকা ২০২৩

জমির মৌজার ম্যাপ কোথায় পাওয়া যায়? – চূড়ান্ত প্রকাশনাকালীন সরকার নির্ধারিত মূল্য পরিশোধ সাপেক্ষে চূড়ান্ত উপজেলা সেটেলমেন্ট অফিসের আওতাধীন প্রকাশনা ক্যাম্প হতে মৌজা ম্যাপ সংগ্রহ করা যায়। চূড়ান্ত প্রকাশনা সমাপনান্তে জেলা প্রশাসকের দপ্তরে রেকর্ড ভলিউমের সাথে মৌজা ম্যাপ হস্তান্তর করা হয়। স্টক থাকা সাপেক্ষে মৌজা ম্যাপের প্রিন্টেড কপি জেলা প্রশাসকের রেকর্ডরুম থেকে সংগ্রহ করা যায়।

মৌজা ম্যাপের কাস্টডিয়ান পরিচালক(জরিপ), ভূমি রেকর্ড ও জরিপ অধিদপ্তর,তেজগাঁও, ঢাকা-১২০৮। ভূমি রেকর্ড ও জরিপ অধিদপ্তরে মৌজা ম্যাপের স্ক্যান কপি দেয়ার ব্যবস্থা আছে। দরখাস্তের মাধ্যমে নির্ধারিত ফি পরিশোধ সাপেক্ষে মৌজা ম্যাপের স্ক্যান কপি সংগ্রহ করা যায। মৌজা ম্যাপ ছাড়া ও অন্যান্য ম্যাপ যেমন, থানা ম্যাপ, জেলা ম্যাপ ও বাংলাদেশ ম্যাপ ভুমি রেকর্ড ও জরিপ অদিদপ্তর হতে সংগ্রহের সুযোগ আছে।

অন্যান্য ম্যাপ- মৌজা ম্যাপ ছাড়াও নিম্নবর্ণিত ম্যাপসমূহ পরিচালক(জরিপ), ভূমি রেকর্ড ও জরিপ অধিদপ্তর, হতে সংগ্রহ করা যায়। থানা ম্যাপ(মুদ্রিত)। জেলা ম্যাপ (মুদিত), সাদা-কালো। জেলা ম্যাপ (মুদ্রিত), রঙিন।বাংলাদেশ ম্যাপ, (মুদ্রিত)।

কোথায় কীভাবে পাবেন জমির এই উল্লেখযোগ্য ডকুমেন্ট? পর্চা বা খতিয়ান। দলিল। ম্যাপ বা নকশা।

এই ডকুমেন্টগুলো ছাড়া আপনি জমি বিক্রয়, হস্তান্তর অথবা ব্যাংক লোন হতে নানান সমস্যা হয়। সেকারণে, জমির খতিয়ান, দলিলসহ সকল কাগজপত্র সংগ্রহে রাখার জন্য সরকারি নানান দপ্তর রয়েছে, যারা ভূমি সংক্রান্ত কাগজপত্র সংগ্রহ করে রাখে। এখন আপনার কাজ হল, ঐ সকল দপ্তরগুলো কে নিশ্চিত করে তাদের শরণাপন্ন হওয়া ও কাগজপত্র গুলো সংগ্রহ করা। নিচে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো, কোথায়, কীভাবে এবং কত সময়ের ভেতরে আপনি জমির খতিয়ান, দলিল ও নকশা সংগ্রহ করবেন।

Caption: Land measurement Symbol

ম্যাপ সংগ্রহের প্রয়োজনীয় ফি কত?  বিভিন্ন রকমের ম্যাপ ও খতিয়ানের বিক্রয়মূল্য

  1. মৌজা ম্যাপ (মুদ্রিত)- ৫০০/-
  2. থানা ম্যাপ(মুদ্রিত)- ৭০০/-
  3. জেলা ম্যাপ(মুদ্রিত), সাদা-কালো- ৮০০/-
  4. জেলা ম্যাপ(মুদ্রিত), রঙিন- ১,০০০/-
  5. বাংলাদেশ ম্যাপ (মুদ্রিত)- ১,৫০০/-
  6. খতিয়ান (মুদ্রিত)- ১০০/-

অনলাইনে কি জমির ম্যাপ পাওয়া যায়?

হ্যাঁ পাওয়া যায়।  অনলাইন আবেদনকোনো মৌজা আয়তনে অনেক বড় আকারের হলে একটি কাগজে পুরো নকশা প্রিন্ট করা অসম্ভব হয় বিধায় বড় মৌজার নকশাকে কয়েকটি ভাগে ভাগ করে প্রিন্ট করা হয়। এদের প্রত্যেকটিকে সীট বলা হয়। বর্তমানে কোন নির্দিষ্ট দাগের জমি মৌজা ম্যাপে কোন সীটের অন্তর্ভুক্ত তা সহজে জানতে পারবেন না। সাধারণত প্রত্যেক মৌজা ম্যাপে সীট নম্বর থাকে। নির্দিষ্ট ম্যাপের সীট নম্বর জানতে হলে সেটেলমেন্ট অফিসে গিয়ে ম্যাপ বের করে সীট নম্বর দেখতে হবে অথবা অন্য কোন ভাবে জানতে হবে। তবে যে সকল মৌজায় আর,এস জরিপ চলমান রয়েছে, সেখানকার খতিয়ানগুলোতে সীট নম্বর দেয়ার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। অনলাইনে মূল্য পরিশোধ করে প্রিন্ট কপি পাওয়া যায়। মোবাইল ব্যাংকিং এ ফি পরিশোধ করলে ডাকযোগে বাড়িতে চলে আসবে জমির ম্যাপ।

অনলাইনে জমির ম্যাপের জন্য আবেদন করতে ক্লিক করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *