দলিলের নকল বা অনুলিপি আপনি নিজেই সংগ্রহ করতে পারেন ফর্মে আবেদনের মাধ্যমে অথবা প্রতিনিধির মাধ্যমেও আবেদন করতে পারেন – দলিলের নকল প্রাপ্তির নিয়ম ২০২৩

মূল দলিল বা সার্টিফাইড কপি কি?রেজিস্ট্রেশন আইন ১৯০৮ এর ৫৭(১) ধারা মোতাবেক, প্রয়োজনীয় ফিস পূর্বে পরিশোধ সাপেক্ষে, যে কোন ব্যক্তি ১ নং (স্থাবর সম্পত্তি সংক্রান্ত দলিলের) ও ২ নং (রেজিস্ট্রি করতে অস্বীকার করা দলিলের) রেজিস্টার বহি ও ১ নং রেজিস্টার বহি সম্পর্কিত সূচিবহি পরিদর্শন করতে পারে এবং উক্ত আইনের ৬২ ধারার বিধানাবলি সাপেক্ষে উক্ত বহিসমুহে লিপিবদ্ধ বিষয়ের নকল (অর্থাৎ দলিলের সার্টিফাইড কপি) গ্রহন করতে পারে।

একই আইনের ৫৭(২) ধারা মোতাবেক, প্রয়োজনীয় ফিস পূর্বে পরিশোধ সাপেক্ষে, দলিল সম্পাদনকারী বা তার এজেন্ট এবং সম্পাদনকারীর মৃত্যুর পর (পূর্বে নয়) যে কোন আবেদনকারী ৩ নং বহি (নিবন্ধিত উইলের রেজিস্টার বহি) তে লিপিবদ্ধ বিষয়ের (অর্থাৎ উইল বা অছিয়ত দলিলের নকল বা সার্টিফাইড কপি) এবং ৩ নং বহি সম্পর্কিত সূচিপত্রের নকল গ্রহন করতে পারে। একই আইনের ৫৭(৩) ধারা মতে, প্রয়োজনীয় ফিস পূর্বে পরিশোধ সাপেক্ষে, দলিলের সম্পাদনকারী বা দাবীদার ব্যক্তি বা তার এজেন্ট অথবা প্রতিনিধি ৪ নং বহিতে লিপিবদ্ধ বিষয়ের নকল গ্রহন করতে পারে। একই আইনের ৫৭(৪) ধারা মতে, ৩ নং ও ৪ নং বহিতে লিখিত বিষয়ের তল্লাশি, সাব-রেজিস্ট্রার এর মাধ্যমে করা যাবে।

দলিলের নকল প্রাপ্তির আবেদনের নিয়ম কি? রেজিস্ট্রেশন বিধিমালা ২০১৪ এর ১০৮ অনুচ্ছেদে সূচিবহি তল্লাশ ও দলিলের নকলের জন্য আবেদনের নিয়মাবলী লিপিবদ্ধ আছে। এ অনুচ্ছেদে বলা হয়েছে, যে সকল ক্ষেত্রে তল্লাশ ও পরিদর্শনের জন্য কোন ফিস পরিশোধযোগ্য নহে, সে সকল ক্ষেত্র ব্যতিত, সকল ক্ষেত্রে নকলের জন্য আবেদন দাখিল করিবার পূর্বে (৩৬ নং ফরম অনুযায়ী) তল্লাশ ও পরিদর্শনের জন্য আবেদন করিতে হইবে। এরপর ৩৭ নং ফরমে নকলের জন্য আবেদন করিতে হইবে।

দলিল সার্চ বা তল্লাসী দিতে আপনার দলিল নম্বর তারিখ ও বালাম নম্বর প্রয়োজন পড়বে / বালাম নং এবং দলিলের তারিখ দেওয়া থাকে

দলিলের নকল উত্তোলন এবং সূচিবহি তল্লাশ ও পরিদর্শনের নিয়মাবলী দেখে নিন অথবা কোন ভেন্ডার বা উকিলের সহায়তা নিন।

দলিলের নকল প্রাপ্তির নিয়ম ২০২৩ । তল্লাশি দিয়ে দলিল বের করবেন যেভাবে

Caption: Last page of deed

Dolil Tollas Fees । তল্লাশ ও রেজিস্টার বহি পরিদর্শন ফিস কত জেনে নিন

  1. কোন নির্দিষ্ট কার্যালয়ের প্রতি দলিলে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির নাম বা অন্তর্ভুক্ত সম্পত্তির বিবরন সংক্রান্ত প্রতিটি ভুক্তির সূচি তল্লাশির ক্ষেত্রে (i) এক বছরের জন্য- ২০ টাকা(ii) একাধিক বৎসরের ক্ষেত্রে, প্রথম বৎসরের জন্য- ২০ টাকা এবং অতিরিক্ত প্রতি বৎসরের জন্য- ১৫ টাকা।
  2. রেজিস্টার বহি পরিদর্শন ফিসঃ ১,৩ ও ৪ নং বহিতে অন্তর্ভুক্ত প্রতিটি নকল অথবা অন্যান্য রেজিস্টার বা বহি বা কোন সুনির্দিষ্ট দলিল বা নথির কোন পৃষ্টা পরিদর্শনের জন্য- ১০ টাকা।
  3. তবে শর্ত এই যে, (ক) কোন নির্দিষ্ট অফিসের সূচিবহিতে অন্তর্ভুক্ত কোন একটি নাম বা সম্পত্তির বিবরন তল্লাশির ক্ষেত্রে ফি’র পরিমান ১৫০ টাকার অধিক হবে না।
  4. (খ) যদি কোন আবেদনকারী কোন নির্দিষ্ট বৎসরের নির্দিষ্ট কোন ভুক্তি তল্লাশির জন্য আবেদন দাখিলক্রমে আবেদনে নিরূপিত প্রাপ্যতার অধিক ভুক্তি সম্পর্কে টোকা গ্রহন করে, তাহলে তাকে আবেদনকালীন সময় জমাকৃত ফি বাদ দিয়া মোট ১৫০ টাকা পরিশোধ করিতে হইবে।
  5. (গ) যদি কোন দলিলের নকল সংগ্রহের জন্য আবেদনের সহিত নিবন্ধিত মূল দলিল বা উহার সত্যায়িত অনুলিপি দাখিল করা হয়, কিংবা যদি কোন দলিল নিবন্ধনের সময় উহার নকল পাইবার জন্য আবেদন দাখিল করা হয়, তবে কোন তল্লাশি ফি প্রদান করিতে হইবে না।
  6. (ঘ) ধারা ৭২, ধারা ৭৩ ও ধারা ৭৪ অনুসারে কোন মামলা সংক্রান্ত একটি নথি অথবা কতিপয় নথিপত্র পরিদর্শনের জন্য আবেদন দাখিল করা হইলে দফা এফ (২) অনুসারে কেবলমাত্র একটি পরিদর্শন ফি প্রদান করিতে হইবে।

দলিলের নকল কিভাবে তল্লাশী দেয়?

যদি মূল দলিল থাকে- রেজিস্ট্রি অফিসে দলিলের রেজিস্ট্রি কার্যক্রম শেষ হলে মূল দলিলের শেষ পৃষ্টার উল্টোদিকে “দলিলটি কত সালের, কত নম্বর বালাম বইয়ের, কত পৃষ্ঠা থেকে কত পৃষ্ঠায় নকল করা হয়েছে” তা লিখে সাব-রেজিস্ট্রার কর্তৃক স্বাক্ষর করা হয়। এটা থেকে সহজেই রেজিস্ট্রি অফিসে থেকে দলিলের নকল উঠানো যায়।

মূল দলিল না থাকলে- রেজিস্ট্রি অফিসে দলিল রেজিস্ট্রি শেষ হলে দলিলের গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি তথ্য নিয়ে সূচিবহি তৈরি করা হয়। একটি সূচিবহি তৈরি হয় দলিলে উল্লিখিত জমির দাতা/বিক্রেতা, গ্রহিতা/ক্রেতা বা অন্য কোন পক্ষের নাম দিয়ে, আর একটি তৈরি হয় জমির মৌজার নাম দিয়ে। দলিল তল্লাশ ও পরিদর্শনের আবেদন ফরম ডাউনলোড করুন

১,৩ ও ৪ নং বহিতে অন্তর্ভুক্ত প্রতিটি নকল অথবা অন্যান্য রেজিস্টার বা বহি বা কোন সুনির্দিষ্ট দলিল বা নথির কোন পৃষ্টা পরিদর্শনের জন্য- ১০ টাকা। (ক) কোন নির্দিষ্ট অফিসের সূচিবহিতে অন্তর্ভুক্ত কোন একটি নাম বা সম্পত্তির বিবরন তল্লাশির ক্ষেত্রে ফি’র পরিমান ১৫০ টাকার অধিক হবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *