সিএস, এসএ, আরএস, বিআরএস খতিয়ান চেনার উপায় ২০২২

বাংলাদেশের জায়গা জমির দলিল খতিয়ান দাগ পর্চা নিয়ে বক্স বন্দি করে রাখলেও এগুলো সম্পর্কে খুব একটা পরিস্কার ধারনা আমরা রাখি না। আজ আমরা CS, SA, RS, City জরিপ এবং BRS জরিপ খতিয়ান সম্পর্কে ধারণা নেব। এই বিবরণ দেখে একজন আম জনতাও খতিয়ান বা পর্চা দেখে চিনতে পারবেন আশা করছি।

খতিয়ান বা জরিপ কি?

খতিয়ান হলো জরিপ বিভাগ বা ভূমি অফিস কর্তৃক সরেজমিনে জমি বা ভূমিতে গিয়ে জমির মালিকানা বিবরণ ও নকশা তৈরি করে যে রেকর্ড তৈরি বা প্রকাশ করা হয়। মোট কথা জমির বিস্তারিত বিবরণ।

সি,এস খতিয়ান

ভারত শাসনামলের খতিয়ান (কাল: ১৮৮৯ থেকে ১৯৪০)। যেখানে জমিদারদের তথ্য এবং জমির মালিকানার তথ্য থাকে। এটি প্রথম খতিয়ান। এটি দুই পৃষ্ঠার হয় এবং লম্বালম্বি ভাবে লেখা হয়। দেখতে নিচের চিত্রের মত হয়। হাতে লেখাও থাকতে পারে। বর্তমানে প্রিন্ট বা কম্পিউটার কপিও হয়। আপনি চাইলে অনলাইনে আবেদন করে এটি ডাক বিভাগের মাধ্যমে নির্দিষ্ট ফি দিয়ে বাসায় পেতে পারেন। বর্তমানে এপিঠ-ওপিঠ প্রিন্ট করে দেয়।

সি,এস খতিয়ান

এস,এ খতিয়ান

এস,এ খতিয়ান মুলত পাকিস্তান আমলের খতিয়ান। সি,এস খতিয়ানের পর এটি অবস্থান। কাল হচ্ছে ১৯৪৭ এরপর থেকে ১৯৫৬- ১৯৬২ পর্যন্ত। তখন মূলত জমিদারী প্রথা নাই। পাশে সাবেক খতিয়ান (সিএস খতিয়ান) এবং হাল কতিয়ান উল্লেখ থাকে। আড়াআড়ি ভাবে থাকে। রেসা নং থাকে না।নমুনা হিসাবে নিচের চিত্রটি দেখুন।

এস,এ খতিয়ান

আর,এস খতিয়ান

আরএস খতিয়ান বা জরিপের মূল কারণ হচ্ছে এসএ খতিয়ানের ভুল সংশোধন। ১৯৬৬-৮০ সাথে এটি সম্পন্ন হয়। এখানে জমির মালিক বা দখলদারদের নিয়ে তথ্য থাকে। এটিও লম্বলম্বি ভাবে থাকে তবে এখানে সিএস এর মত জমিদারদের তথ্য থাকে না। এটি দুই পৃষ্ঠার হয়। নিচের চিত্রের মত হয়। রিসার্ভে নং লেখা থাকে।

আরএস খতিয়ান

সিটি জরিপ খতিয়ান

সিটি জরিপ খতিয়ান এ উপরের খতিয়ান নং লেখা থাকে এবং সিটি জরিপ সিল মারা থাকে। এটি আড়াআড়ি ভাবে এক পাতার পর্চা হয়ে থাকে। নিচের চিত্রের মতোন। সময়কাল এটি ২০০০ সালে সম্পন্ন হয়। এটি কম্পিউটারে টাইপ করা হয়।

সিটি জরিপ বা খতিয়ান

বি,আর,এস খতিয়ান

বিআরএস জরিপটি এখনও বাংলাদেশে চলমান। বিআরএস জরিপটি সম্পন্ন হচ্ছে। এটি আড়াআড়ি ভাবে প্রিন্ট করা হয়। কম্পিউটারে টাইপ করা থাকে তথ্য। তবে সিটি জরিপ সিল দেওয়া থাকে না এবং হুবহু সিটি জরিপ খতিয়ানের মতই দেখতে। নিচের চিত্রের মতো দেখে নিন।

বিএসআর জরিপ

ডিপি খতিয়ান বা মাঠ পর্চা

মাঠ পর্চা চেনার সহজ উপায় হচ্ছে এটি হাতে লেখা থাকে। এটিতে ভূমি অফিসের তসদিককৃত লেখা সিল দেওয়া থাকে। ডিপি নং দেওয়া থাকে। এটি মূলত দখলের ভিত্তিতে তৈরি করা থাকে। নিচের চিত্রের মত।

মাঠ পর্চা বা ডিপি খতিয়ান

বিস্তারিত আসছে ভিডিও সহ………………..

5 thoughts on “সিএস, এসএ, আরএস, বিআরএস খতিয়ান চেনার উপায় ২০২২

  • 04/08/2022 at 3:49 pm
    Permalink

    ধন্যবাদ

    Reply
    • 21/09/2022 at 4:09 am
      Permalink

      অনলাইনে সিটি জরিপের আবেদন করবো কিভাবে। সিটি জরিপের অপশন তো নাই

      Reply
      • 21/09/2022 at 11:34 am
        Permalink

        সিটি জরিপের জন্য আবেদন করা যাবে না। সিটি জরিপের পর্চা ডাউনলোড বা সার্টিফাইড কপি প্রাপ্তির আবেদন করতে পারবেন। https://eporcha.gov.bd/

        Reply
  • 17/08/2022 at 5:09 am
    Permalink

    অনেক ইনফরমেশন জানতে পারলাম

    Reply

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *