বিআরটিএ ড্রাইভিং লাইসেন্স পেতে আর দৌড়াদৌড়ি নয়– বায়োমেট্রিক এবং লাইসেন্স সংগ্রহে ভোগান্তি কমছে – ড্রাইভিং লাইসেন্স ডাকযোগে ঘরে আসবে

এখন নাকি একবার বিআরটিএ গেলেই হয়? –হ্যাঁ। লার্নার ড্রাইভিং লাইসেন্স এবং স্মার্ট কার্ড ড্রাইভিং লাইসেন্সের জন্য দু’টি আবেদনের পরিবর্তে অনলাইন বেজইড একটি কম্বাইনড ফরম ১৬ নভেম্বর ২০২২ থেকে বিআরটিএ সার্ভিস পোর্টালে (BSP) চালু হয়েছে। এক্ষেত্রে আবেদনকারীকে ৩/৪ বারের পরিবর্তে শুধুমাত্র একবার পরীক্ষা কেন্দ্রে পরীক্ষা দেওয়া ও বায়ো-এনরোলমেন্ট এবং ছবি তোলার জন্য আসতে হবে। মোট কথা একদিনেই সকল কাজ সম্পন্ন হবে।

ডাকযোগে লাইসেন্স পেতে কি অতিরিক্ত ফি গুণতে হয়? হ্যাঁ। লাইসেন্স প্রক্রিয়া সম্পন্ন হলে মোবাইল ফোনে এসএমএসের মাধ্যমে গ্রাহককে জানিয়ে দেওয়া হয়। তারপর গ্রাহকের ঠিকানায় ডাক বিভাগের মাধ্যমে এক মাসের মধ্যে লাইসেন্স পৌঁছে দেয় বিআরটিএ। সব মিলিয়ে ফি নির্ধারণ করা হয়েছে ৬০ টাকা। এই ৬০ টাকার মধ্যে ৪৫ টাকা ডাকা বিভাগের চার্জ এবং বাকি টাকা এসএমএসসহ অন্যান্য চার্জ হিসাবে ধরা হয়েছে।

এক্ষেত্রে আবেদনকারীকে ৩/৪ বারের পরিবর্তে শুধুমাত্র ০১ (এক) বার পরীক্ষা কেন্দ্রে পরীক্ষা প্রদান ও বায়াে-এনরােলমেন্টের জন্য আসতে হবে। এছাড়াও এ সিস্টেম থেকে আবেদনকারীগণ ঘরে বসেই অনলাইনের মাধ্যমে অনলাইন ভেরিফিকেশন বেজড QR কোড সম্বলিত লার্ণার লাইসেন্স গ্রহণ, ফি প্রদান, পরীক্ষার ফলাফল জানা, সিস্টেম জেনারেটেড স্মার্ট কার্ড আবেদন দাখিল, QR কোড বেজড সিস্টেম জেনারেটেড মােটরযান চালনার অস্থায়ী অনুমতিপত্র বা Acknowledgement Slip প্রাপ্তি এবং আবেদনপত্র বা কার্ড প্রস্তুতের প্রতিটি পর্যায়ে স্টেটাস জানতে পারবেন। ড্রাইভিং লাইসেন্স নবায়ন করার নিয়ম ২০২২ । পুনরায় বাইক চালিয়ে পরীক্ষা দিতে হবে কিনা

ড্রাইভিং লাইসেন্স করতে একাধিকবার দৌড়াতে হবে না / ড্রাইভিং লাইসেন্স বাড়িতে চলে আসবে

অনেকে হয়তো এখনও বিশ্বাসই করতে পারছেন না যে, ঘরে লাইসেন্স পৌছে যাবে। হ্যাঁ নিচের প্রমানক দেখুন ডাকে ড্রাইভিং লাইসেন্স পাওয়া গেছে।

BRTA Driving licence by Post office । ড্রাইভিং লাইসেন্স ডাকযোগে ঘরে আসবে

Caption: Source of information

পোস্ট অফিসের মাধ্যমে লাইসেন্স পাওয়ার নিয়ম । যেভাবে ডাকযোগে ড্রাইভিং লাইসেন্স পাবেন

  1. অনলাইনে রেজিস্ট্রেশিন করতে হলে বিআরটিএ-এর অফিসিয়াল ওয়েব সাইটে – https://bsp.brta.gov.bd/ প্রবেশ করে জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর এবং জন্মতারিখ প্রদান করার মাধ্যমে ইউজার আইডি খুলতে হবে।
  2. নির্দিষ্ট ফরম পূরণ করার পড় এসএমএস এলে BRTA এর পরীক্ষা কেন্দ্রে এসে বায়োএনরোলমেন্ট প্রদান ও পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হবে।
  3. এই ধাপে আবেদনকারী অনলাইন ভেরিফিকেশন বেজড QR কোর্ডযুক্ত লার্নার ড্রাইভিং লাইসেন্স গ্রহন করতে পারবেন।
  4. পরবর্তী ধাপে পরীক্ষায় পাশ করার পর অনলাইনে ফি প্রদান এবং সিস্টেমে প্রবেশ করে যাবতীয় তথ্য এবং ডকুমেন্ট যাচাই করে সাবমিট করতে পারবেন।
  5. পরবর্তীতে অনলাইনে পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হবে , তখন আবেদনকারী QR কোড বেজড সিস্টেমে জেনারেটেড মোটরযান চালনার অস্থায়ী অনুমতিপত্র বা Acknowledgement Slip গ্রহণ করতে পারবেন।
  6. সব তথ্য সঠিক থাকলে আবেদনকারীর ঠিকানায় ডাকযোগে লাইসেন্স স্মার্ট কার্ড পৌঁছে দেয়া হবে।

যদি দালাল টাকা চায়?

দালাল থেকে দূরে থাকবেন। ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রাপ্তির পরীক্ষা, প্র্যাকটিক্যাল এবং ভাইভা হওয়ার পূর্বে সম্পূন্ন টাকা জমা দিতে হবে না। তাই দালাল থেকে দূরে থাকবেন। এ বিষয়ে যেকোনো অভিযোগ বা পরামর্শ থাকলে info@brta.gov.bd ইমেইলে পাঠানোর জন্য অনুরোধ করা হয়েছে।

অনলাইনে ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রাপ্তির আবেদন করার নিয়ম ২০২৩ । ডাকযোগে ড্রাইভিং লাইসেন্স স্মার্ট কার্ড পেতে পারবেন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *