NID কার্ড এবং পাসপোর্টের স্বাক্ষর ভিন্নতা থাকলে কি করবেন?

জনাব তৌসিফ আহমেদ ২০০৬ সালে NID কার্ড পেয়েছেন। সেসময় NID কার্ডে স্বাক্ষর হিসেবে তিনি নিজের নাম সম্পূর্ণ ভাবে লিখেছেন (বাংলা / ইংরেজিতে)। পরবর্তীতে তিনি Passport করার সময় ভিন্ন/সংক্ষিপ্ত/ সাংকেতিক কোন স্বাক্ষর দিয়েছেন। বর্তমানে জনাব তৌসিফ ভিসার জন্য একটি দেশে আবেদন করতে চাচ্ছেন। এমতাবস্থায়, তিনি কিছুটা দুশ্চিন্তায় পড়েছেন কারণ তার এই স্বাক্ষরের ভিন্নতা তার ভিসা পেতে সমস্যা করবে কি না?

চলুন আজ জানি, NID কার্ড এবং পাসপোর্টের স্বাক্ষরে ভিন্নতা থাকলে ভবিষ্যতে কোন সমস্যা হবে কি না?

NID কার্ড এবং পাসপোর্টের স্বাক্ষরে ভিন্নতা থাকলে ভবিষ্যতে কোন সমস্যা হবে না। এমনকি, আপনার যদি বর্তমান পাসপোর্ট না থাকে এবং নতুন করে পাসপোর্ট আবেদন করতে চান সেখানেও আপনাকে একই স্বাক্ষর ব্যবহার করার কোন বাধ্যবাধকতা বা শর্ত নেই। অর্থাৎ আপনি আপনার প্রয়োজনে NID কার্ড এবং পাসপোর্টে ভিন্ন ধরনের বা ভিন্ন ভাষার স্বাক্ষর ব্যবহার করতে পারবেন।

সহজ কথায় বলতে গেলে, আপনার NID কার্ড যদিও অনেক আগে করার কারণে স্বাক্ষর হিসেবে আপনি পুরো নাম/ বাংলা ভাষায়/ ইংরেজিতে লিখে থাকেন তবুও পাসপোর্ট সংক্ষিপ্ত বা অন্য কোন ভাষায় দিতে পারবেন। এবং এতে করে ভবিষ্যতে আপনার কোন সমস্যা হবেনা এমনকি ভিসা পেতেও সমস্যা হবেনা।

তবে ভবিষ্যতে যদি কখনো আপনার NID কার্ড সংশোধনের প্রয়োজন পড়ে বা সংশোধন করেন তবে আপনি চাইলে একই সময় আপনার স্বাক্ষরও পরিবর্তন করে নিতে পারেন। এমনকি MRP পাসপোর্ট থেকে ডিজিটাল করার সময় অথবা রিনিউ করার সময় আপনি চাইলে আপনার পাসপোর্টের স্বাক্ষরও পরিবর্তন করে নিতে পারেন।

2 thoughts on “NID কার্ড এবং পাসপোর্টের স্বাক্ষর ভিন্নতা থাকলে কি করবেন?

  • 19/06/2022 at 3:12 pm
    Permalink

    সুন্দর সমাধান

    Reply
    • 19/06/2022 at 3:17 pm
      Permalink

      আপনার মতামতের জন্য ধন্যবাদ

      Reply

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *