এমপিওভুক্ত শিক্ষকগণকে ল্যাপটপ ক্রয় ঋণ সুবিধা ২০২২ । পাইলটিং আকারে ব্র্যাক ব্যাংক লিমিটেড হতে ল্যাপটপ ক্রয়ের জন্য ঋণ প্রদান করছে

আপনি কি সাভার বা গাজীপুরের এমপিও-ভিত্তিক শিক্ষক? আপনার কি ল্যাপটপ প্রয়োজন?– ক্রমান্বয়ে সারা দেশে ল্যাপটপ ঋণ প্রদান করা হবে- এমপিওভুক্ত শিক্ষকগণকে ল্যাপটপ ক্রয় ঋণ সুবিধা ২০২২

মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর কর্তৃক পৃষ্ঠাংকন- ব্র্যাক ব্যাংক লিমিটেড কর্তৃক প্রস্তাবিত মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের আওতাধীন এমপিওভুক্ত শিক্ষকগণকে ল্যাপটপ ক্রয়ের জন্য গাজীপুর জেলা ও সাভার উপজেলায় পাইলটিং আকারে ঋণ সুবিধা চালু হতে যাচ্ছে। এমতাবস্থায়, গাজীপুর জেলা ও সাভার উপজেলার এমপিওভুক্ত শিক্ষকগণকে Laptop Loan Application Portal (https://brac.shadhinbd.com) এর নির্দেশনা অনুযায়ী ঋণ সুবিধা প্রাপ্তি আবেদনের বিষয়টি অবহিতকরণের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হয়েছে। সূত্র দেখুন

ব্র্যাক ব্যাংক ল্যাপটপ লোন শুধুমাত্র মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরে (DSHE) নিবন্ধিত এমপিও-ভিত্তিক শিক্ষকদের জন্য একটি লোন সুবিধা। এই লোন ব্যবহার করে আপনি ব্র্যাক ব্যাংক তালিকাভুক্ত ব্র্যান্ড আউটলেট থেকে ল্যাপটপ কিনতে পারবেন। প্রাথমিকভাবে, ল্যাপটপের জন্য আমাদের পার্টনার ব্র্যান্ড হবে ওয়ালটন, যা সাশ্রয়ী মূল্যে আধুনিক প্রযুক্তির ল্যাপটপ এবং বিক্রয় পরবর্তী সেবা প্রদান করে।

আপনি ‘ল্যাপটপ লোন অ্যাপ্লিকেশন পোর্টাল’ – এই অনলাইন প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে ল্যাপটপ লোনের জন্য আবেদন করতে পারবেন। লোন আবেদন প্রক্রিয়া চলাকালীন আপনাকে আপনার NID, স্যালারি অ্যাকাউন্টের চেকের পাতা এবং ইউটিলিটি বিল হাতে রাখতে হবে। আবেদন জমা দেওয়ার পর, লোনটি একই দিনের মধ্যে প্রক্রিয়া করা হবে*। লোন অনুমোদিত হওয়ার পর, আপনি ওয়ালটনের নির্বাচিত আউটলেটে গিয়ে ল্যাপটপ কিনতে পারবেন।

ল্যাপটপ ঋণের জন্য অনলাইনে আবেদন করতে হবে / আবেদনের পর আপনার কাছে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ও তথ্য চাওয়া হবে

শুধুমাত্র কর্মদিবসের জন্য প্রযোজ্য। ছুটির দিনে লোনের আবেদন জমা দিলে পরবর্তী কার্যদিবসে লোন প্রক্রিয়া করা হবে।অনুমোদিত লোনের পরিমাণ নির্ভর করবে আপনার সর্বশেষ ব্যাংকে জমা হওয়া বেতনের উপর। 

এমপিওভুক্ত শিক্ষকগণকে ল্যাপটপ ক্রয় ঋণ সুবিধা ২০২২ । পাইলটিং আকারে ব্র্যাক ব্যাংক লিমিটেড হতে ল্যাপটপ ক্রয়ের জন্য ঋণ প্রদান করছে

Caption: https://brac.shadhinbd.com

ব্র্যাক ব্যাংক ল্যাপটপ লোনের জন্য আবেদন করার আগে যে বিষয়গুলো জেনে রাখা দরকার

  1. প্রাথমিকভাবে গাজীপুর ও সাভার এলাকার শিক্ষকরা এই লোনের জন্য আবেদন করতে পারবেন।
  2. NID এবং DSHE EMIS-এ আবেদনকারীর তথ্য, যেমন নাম, মোবাইল নম্বর এবং জন্মতারিখ অবশ্যই মিলতে হবে, অন্যথায় লোনের আবেদন প্রত্যাখ্যান করা হবে।
  3. ল্যাপটপের বিক্রয়-পরবর্তী সেবা পেতে হলে ওয়ালটনের সাথে যোগাযোগ করতে হবে। ব্র্যাক ব্যাংক বা স্বাধীন ফিনটেক (ল্যাপটপ লোন অ্যাপ্লিকেশন পোর্টালের নির্মাতা) ল্যাপটপের বিক্রয় পরবর্তী সেবার জন্য দায়ী থাকবে না।

বেতন সীমার উপর ভিত্তি করে লোনের পরিমাণ কত?

বেতন সীমা (টাকা) সর্বোচ্চ লোনের পরিমাণ (টাকা)
১৭,০০০- ২৫,০০০ ৬০,০০০
২৫,০০১-৩৫,০০০ ৭৫,০০০
৩৫,০০০+ ১০০,০০০

ল্যাপটপ কেনার জন্য কোথায় যোগাযোগ করতে হবে?

ব্র্যাক ব্যাংকের নির্ধারিত আউটলেট হতে ক্রয় করতে হবে। আপনি শুধুমাত্র নিম্নলিখিত আউটলেটগুলি থেকে আপনার অনুমোদিত লোন দিয়ে আপনার পছন্দসই ল্যাপটপ কিনতে পারেন।

ওয়ালটন প্লাজা-কোনাবাড়ি, গাজীপুর ওয়ালটন প্লাজা-বাস স্ট্যান্ড, সাভার
প্লট- এ-১৩৮, আনোয়ার কমপ্লেক্স, বিসিক প্রধান ফটক, কোনাবাড়ী, গাজীপুর এ/৪৪, আমিন টাওয়ার, বাজার রোড, সাভার, ঢাকা
যোগাযোগঃ শাহরিয়ার সবুজ যোগাযোগঃ রাজেশ মণ্ডল
মোবাইল নম্বরঃ +৮৮০১৬০৮৯৮০৩৪৮ মোবাইল নম্বরঃ +৮৮০১৬০৮৯৮০২৮৯

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *