প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বার্ষিক মূল্যায়ন পদ্ধতি ২০২২ । প্রয়োজনীয় সংখ্যক সাদা কাগজ বাড়ী থেকে নিয়ে আসতে হবে

সূচীপত্র

চলতি বছর প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে না তাই কর্তৃপক্ষ এ ক্ষেত্রে মূল্যায়ন পরীক্ষা গ্রহণ করবেন – চূড়ান্ত মূল্যায়নের জন্য প্রয়োজনীয় সংখ্যক সাদা কাগজ বাড়ী থেকে নিয়ে আসার জন্য পূর্বেই শিক্ষার্থীকে অবহিত করতে হবে– প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বার্ষিক মূল্যায়ন পদ্ধতি ২০২২

বাংলা ও ইংরেজি বিষয়ে শােনা, বলা, পড়া এবং লেখা বিষয়গত নির্দেশনা মােতাবেক শিক্ষার্থীর দক্ষতা পরিমাপ করতে হবে। পড়া ও লেখা শ্রেণি পরীক্ষার মাধ্যমে দক্ষতা পরিমাপ করতে হবে। শিক্ষক বিদ্যালয় খোলার তারিখ হতে যতগুলাে শ্রেণি পরীক্ষা গ্রহণ করেছেন তার মধ্যে যে কয়টিতে সর্বোচ্চ নম্বর পেয়েছে এমন। পরীক্ষার ৫টির নম্বর গণনা করবেন। প্রত্যেকটি শ্রেণি পরীক্ষায় ২০ নম্বরের উপর পরীক্ষা গ্রহণ করতে হবে।

গণিত বিষয়ে গাণিতিক ধারণা, প্রক্রিয়াগত ধারণা এবং সমস্যা সমাধানের উপর লিখিত শ্রেণি পরীক্ষা গ্রহণ করতে হবে। এ ধরণের পরিমাপ শিক্ষকগণ এতদিন করে এসেছেন। সুতরাং শিক্ষক বিদ্যালয় খােলার তারিখ হতে যতগুলাে শ্রেণি পরীক্ষা গ্রহণ করেছেন তার মধ্যে যে কয়টিতে সর্বোচ্চ নম্বর পেয়েছে এমন পরীক্ষার ৫টির নম্বর গণনা করবেন। প্রত্যেকটি শ্রেণি পরীক্ষায় ২০ নম্বরের উপর পরীক্ষা গ্রহণ করতে হবে।

জাতীয় শিক্ষাক্রম রুপরেখা ২০২১ ও পরিমার্জিত শিক্ষাক্রমের আলােকে ২০২৩ শিক্ষাবর্ষ থেকে ১ম শ্রেণির কোন প্রান্তিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে না। তবে প্রবর্তিত ধারাবাহিক মূল্যায়নের উপর ভিত্তি করে প্রতি প্রান্তিকের ফলাফল প্রদান করা হবে। এছাড়াও ২০২৪ শিক্ষাবর্ষ থেকে ২য় ও ৩য় শ্রেণিতে নতুন বই প্রবর্তন সাপেক্ষে শতভাগ ধারাবাহিক মূল্যায়ন ব্যবস্থা এবং ২০২৫ শিক্ষাবর্ষে হতে ৪র্থ ও ৫ম শ্রেণিতে ধারাবাহিক ও সামষ্টিক মূল্যায়নের সংমিশ্রণে মূল্যায়ন ব্যবস্থা থাকবে। ২০২৩ সালে ধারাবাহিক মূল্যায়ন প্রবর্তনের পূর্বে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রচলিত পরীক্ষা তথা মূল্যায়ন পদ্ধতি চলমান থাকবে।

বার্ষিক পরীক্ষার মূল্যায়ন নির্ধারিত ছক মোতাবেক নির্ণয় হবে / কোনো অবস্থাতেই প্রশ্নপত্র ছাপিয়ে শিক্ষার্থীর মূল্যায়ন গ্রহণ করা যাবে না।

পরীক্ষা গ্রহণের ক্ষেত্রে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের নির্দেশনা মেনে চলতে হবে।

Caption: order published by DPE

বার্ষিক পরীক্ষার মূল্যায়ন পদ্ধতি । ২০২২ শিক্ষাবর্ষের ৩য় প্রান্তিকে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বার্ষিক মূল্যায়নের জন্য নিম্নোক্ত নির্দেশনাবলী

  1. সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৩য় প্রান্তিকে (চূড়ান্ত) বার্ষিক মূল্যায়ন ০৬-১৫ ডিসেম্বর ২০২২ তারিখের মধ্যে সম্পন্ন করতে হবে।
  2. ৩য় প্রান্তিকে প্রতি শ্রেণিতে প্রতি বিষয়ে সর্বোচ্চ ৬০ নম্বরের মধ্যে বার্ষিক মূল্যায়ন সম্পন্ন করতে হবে।
  3. বিদ্যালয়ের সংশ্লিষ্ট বিষ য়শিক্ষকের মাধ্যমে প্রশ্নপত্র প্রণয়ন করে এ মূল্যায়ন সম্পন্ন করতে হবে।
  4. প্রশ্নপত্র প্রণয়নে জ্ঞানমূলক, অনুধাবন, প্রয়োগমূলক, শিখনক্ষেত্র বিবেচনায় নিতে হবে।
  5. মূল্যায়ন কার্যক্রম সম্পদের জন্য শিক্ষার্থী বা অভিভাবকগণের নিকট থেকে কোনো মূল্যায়ন ফি গ্রহণ করা যাবে না।
  6. বিদ্যালয়ের শ্রেণিকক্ষের বোর্ড-এ প্রশ্নপত্র লিখে মূল্যায়ন কার্যক্রম সম্পন্ন করতে হবে। কোনো শ্রেণিতে শিক্ষার্থীর সংখ্যা অধিক হলে সেক্ষেত্রে প্রশ্নপত্র হাতে লিখে ফটোকপি করা যেতে পারে। প্রশ্নপত্র ফটোকপির প্রয়োজন হলে বিদ্যালয়ের আনুসাঙ্গিক খাত থেকে ব্যয় করা যাবে।
  7. কোনো অবস্থাতেই প্রশ্নপত্র ছাপিয়ে শিক্ষার্থীর মূল্যায়ন গ্রহণ করা যাবে না।
  8. চূড়ান্ত মূল্যায়নের জন্য প্রয়োজনীয় সংখ্যক সাদা কাগজ বাড়ী থেকে নিয়ে আসার জন্য পূর্বেই শিক্ষার্থীকে অবহিত করতে হবে।
  9. প্রত্যেকটি বিষয়ে শ্রেণি পরীক্ষাসমূহের প্রাপ্ত নম্বর এবং চূড়ান্ত প্রান্তিকের প্রাপ্ত নম্বর যোগ করে ২০২২ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীদের অগ্রগতির প্রতিবেদন প্রণয়ন করতে হবে।

নির্ধারিত ছক অনুসারে মূল্যায়ন করতে হবে?

হ্যাঁ। জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড কর্তৃক প্রদত্ত টেবিলের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের বার্ষিক পরীক্ষার এক্সম মূল্যায়ন করা হবে। তাই বোর্ড নির্দেশিত পন্থা ও নীতিমালা অনুসরণ করতে হবে। এক্ষেত্রে ভিন্ন ভিন্ন পন্থা অবলম্বন করা যাবে না। জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বাের্ড (এনসিটিবি) তাদের মতামতে জানিয়েছে যে, জাতীয় শিক্ষাক্রম রুপরেখা ২০২১ এ প্রাক-প্রাথমিক হতে দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত অনুমােদিত মূল্যায়ন নীতিমালায় প্রাথমিক স্তর থেকে এসএসসি বা মাধ্যমিক পরীক্ষার পূর্বে কোনাে ধরণের পাবলিক পরীক্ষা অর্থাৎ পিইসিই, জেএসসি বা জেডিসি পরীক্ষা না গ্রহণের সুপারিশ করা হয়েছে।

বি:দ্র: উপরোক্ত নির্দেশনাটি প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর কর্তৃক জারি করা হয়নি।

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বার্ষিক পরীক্ষার মূল্যায়ন পদ্ধতি । ধারাবাহিক মূল্যায়ন পদ্ধতির ছক ২০২২

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *