ব্যাংক কর্মকর্তাদের শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদ ও নিয়োগ বা অব্যাহতি প্রদানের ক্ষেত্রে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্দেশনা অনুসরণ করতে হবে – ব্যাংক কর্মকর্তা নিয়োগ ও ব্যবস্থাপনা

আর্থিক প্রতিষ্ঠান নিয়োগ নীতিমালা –এফআইডি সার্কুলার নং ০৯, তারিখ: ১৪ সেপ্টেম্বর ২০০৫, ডিএফআইএম সার্কুলার নং-০৪, তারিখ: ২৭ জুন ২০১৩ এবং ডিএফআইএম সার্কুলার নং-০৩, তারিখ: ১০ অক্টোবর ২০১৯ এর প্রতি আপনাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করা যাচ্ছে। বর্ণিত সার্কুলারসমূহে আর্থিক প্রতিষ্ঠানে মানবসম্পদ নিয়োগে শৃঙ্খলা পরিপন্থী কার্যকলাপ রোধে করণীয়, নতুন নিয়োগের ক্ষেত্রে প্রার্থীর বয়সের উচ্চসীমা ইত্যাদি বিষয়ে নির্দেশনা রয়েছে । এক্ষণে, আর্থিক প্রতিষ্ঠানসমূহে সুশাসন নিশ্চিতকরণ, স্বচ্ছতার সাথে যোগ্য, সৎ ও দক্ষ মানবসম্পদ নিয়োগ শু ব্যবস্থাপনা কার্যক্রম সম্পাদনের লক্ষ্যে কিছু নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে।সাধারণভাবে আর্থিক প্রতিষ্ঠানের যে কোন স্তরে কর্মকর্তা-কর্মচারী নিয়োগ, পদোন্নতি ও সার্বিক মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনা সংশ্লিষ্ট বিষয়ে একটি সুস্পষ্ট নীতিমালা থাকতে হবে যা প্রতিষ্ঠানের পরিচালনা পর্ষদ কর্তৃক অনুমোদিত হতে হবে।

একই ব্যক্তি কি একাধিক পদে থাকতে পারবে? না। অভ্যন্তরীণ নিয়ন্ত্রণ ও পরিপালন (ICC) বিভাগের প্রধান, ঋণ ঝুঁকি ব্যবস্থাপনা (CRM) বিভাগের প্রধান, প্রধান আর্থিক কর্মকর্তা (CFO) এবং কোম্পানি সচিব ইত্যাদি পদসমূহের যথাযথ গুরুত্ব বিবেচনায় বর্ণিত পদসমূহের যোগ্যতা ও উপযুক্ততা নির্ধারণের জন্য পরিচালনা পর্ষদের অনুমোদিত নীতিমালা থাকতে হবে। এছাড়াও এসকল পদে নিয়োগের জন্য প্রাপ্ত আবেদন মূল্যায়নের লক্ষ্যে পরিচালনা পর্ষদ অনুমোদিত মূল্যায়ন থক্রিয়া থাকতে হবে। কোন ব্যক্তি একই সাথে (যুগপৎ) উপরোক্ত একাধিক পদে বহাল থাকতে পারবেন না।

কোন কর্মকর্তাকে অব্যহতির কতদিন পূর্বে অনুমোদন নিতে হবে? বর্ণিত পদসমূহের দায়িত্ব ও কর্তব্য সুস্পষ্টভাবে প্রতিষ্ঠানের মানবসম্পদ নীতিমালায় অন্তর্ভুক্ত করতে হবে, (৫) অভ্যন্তরীণ নিয়ন্ত্রণ ও পরিপালন (ICC) বিভাগের প্রধান, ঋণ ঝুঁকি ব্যবস্থাপনা (CRM ) বিভাগের প্রধান, প্রধান আর্থিক কর্মকর্তা (CFO) এবং কোম্পানি সচিব হিসেবে নিয়োগপ্রাপ্ত কর্মকর্তাগণের পূর্ণাঙ্গ জীবন বৃত্তান্ত নিয়োগ প্রদানের ১৫ (পনের) কর্মদিবসের মধ্যে বাংলাদেশ ব্যাংকের আর্থিক প্রতিষ্ঠান ও বাজার বিভাগে প্রেরণ করতে হবে। বর্ণিত পদসমূহ হতে কোন কর্মকর্তাকে অব্যাহতি প্রদান করতে হলে অব্যাহতি প্রদানের অন্যূন ১ (এক) মাস পূর্বে বাংলাদেশ ব্যাংক-কে অবহিত করতে হবে।

সনদ যাচাই এবং অব্যাহতি প্রদানের সতর্ক থাকতে হবে / কর্মকর্তা নিয়োগের ক্ষেত্রে ব্যাংক আইন অনুসরণ করতে হবে

আর্থিক প্রতিষ্ঠান আইন, ১৯৯৩ এর ১৮(ছ) ধারায় প্রদত্ত ক্ষমতাবলে এ নির্দেশনা জারি করা হলো, যা অবিলম্বে কার্যকর হবে।

নতুন নির্দেশনা ২০২৩ PDF Download

আর্থিক প্রতিষ্ঠান আইন, ১৯৯৩ । ৮(ছ) ধারায় কি আছে জেনে নিন । কতিপয় বিষয় নির্ধারণে বাংলাদেশ ব্যাংকের ক্ষমতা

  • (ক) বিভিন্ন শ্রেণীর আমানতের উপর আর্থিক প্রতিষ্ঠান কর্তৃক প্রদেয় সুদের সর্বোচ্চ হার,
  • (খ) কোন ব্যক্তির নিকট হইতে আর্থিক প্রতিষ্ঠান কর্তৃক গৃহীতব্য ঋণের সর্বোচ্চ পরিমাণ,
  • (গ) আর্থিক প্রতিষ্ঠান কর্তৃক প্রদত্ত ঋণ পরিশোধের সর্বোচ্চ সময়সীমা,
  • (ঘ) আর্থিক প্রতিষ্ঠান কর্তৃক প্রদত্ত বিভিন্ন শ্রেনীর ঋণের উপর সুদের সর্বোচ্চ হার এবং উক্ত হার হিসাবায়ন পদ্ধতি,
  • (ঙ) আর্থিক প্রতিষ্ঠান কর্তৃক কোন ব্যক্তির অনুকূলে ঋণ প্রদানের সর্বোচ্চ সীমা,
  • (চ) আর্থিক প্রতিষ্ঠান কর্তৃক বাংলাদেশ ব্যাংকে রক্ষিতব্য রিজার্ভ,
  • (ছ) জনস্বার্থে বা মুদ্রানীতির উন্নতি বিধানে অন্যান্য বিষয়৷

শিক্ষাগত সনদ যাচাই করে কতদিনের মধ্যে নথিতে সংরক্ষণ করতে হবে??

নিয়োগপ্রাপ্ত সকল কর্মকর্তা কর্মচারীর শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদ এবং জাতীয় পরিচয়পত্রের সঠিকতা যাচাইপূর্বক নথিতে সংরক্ষণ করতে হবে। সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীর হালনাগাদ ব্যক্তিগত যোগাযোগের ঠিকানা ও মোবাইল ফোন নম্বর প্রতিষ্ঠানের নথিতে সংরক্ষণ করতে হবে। যে সকল কর্মকর্তা/কর্মচারী ইতোমধ্যে প্রতিষ্ঠানে কর্মরত আছেন তাঁদের শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদ এবং জাতীয় পরিচয়পত্র এ নীতিমালা জারি হওয়ার ৬(ছয়) মাসের মধ্যে যাচাইপূর্বক সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীর ব্যক্তিগত নথি হালনাগাদ করতে হবে এবং এ নীতিমালা পরিপালনার্থে আর্থিক প্রতিষ্ঠানসমূহ পরিচালনা পর্ষদের সভা আহবান করবে এবং পরিপালনের অগ্রগতি ০২(দুই) মাসের মধ্যে এ বিভাগকে অবহিত করতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *